Skip to content

মেয়েদের ব্রা ব্যবহার এর সঠিক নিয়ম ও কিভাবে ব্যবহার করতে হয় জেনে নিন

মেয়েদের ব্রা ব্যবহার এর সঠিক নিয়ম ও কিভাবে ব্যবহার করতে হয় জেনে নিন

হ্যালো বন্ধুরা কি অবস্থা কেমন আছেন আশা করছি ভাল আছেন আমিও অনেক ভালো আছি আজকে আমরা আলোচনা করব অন্য রকম আর্টিকেল নিয়ে আর তা হচ্ছে ব্রা ব্যবহার এর সঠিক নিয়ম আমাদের পোস্টে যেহেতু হান্দাইয়া পড়ছেন। তাহলেও সম্পূর্ণ পোস্টটি পড়বেন আশা করছি সঠিক তথ্য পেয়ে যাবেন,  ও সম্পন্ন আর্টিকেলটি পড়লে অনেক মজা পাবেন।

 মেয়েদের দৈনন্দিন জীবনের সুপরিচিত একটি পোশাক হলো ব্রা। যা পড়লে সকল বয়সের নারীকে দেখায় স্লিম এবং সুন্দর যা আপনার বেস্ট কে ঢেকে রাখতে সাহায্য করে ,যা পড়ার ফলে আপনি অন্য পুরুষদের সামনে পড়লেও আপনাকে দেখাবে অনেকটা সুন্দর এবং অনেকটা টাইট ফিটিং আপনি যে ব্রা টা পরছেন, তার কিন্তু একটা সঠিক ব্যবহার আছে আর তা নিয়ে আমারা এই পোস্ট এ আলোচনা করার চেস্টা করব।

ব্রা ব্যবহার নিয়ে কিছু কথা……… বর্তমানে অনেক রকমের ধরনের ব্রা পাওয়া যায় । তাই সঠিক ব্রাটি খুজে বের করা এবং পরিধান করা একটি অন্য রকম কাজে পরিণত হয়েছে । প্রেগনেন্সির সময় অথবা বাচ্চা হওয়ার পর ব্রা পরবে কি না তা নির্ভর করে নিজের চিন্তা-ধারার উপর।কিন্তু এই সময় ব্রা এটা পরলে অনেক সমস্যা থেকে রক্ষা করে । যাদের ব্রেস্ট একটু বড় বড় এরা ব্রা পরে অনেক আরাম মনে করে আরাম আরাম অনুভুতি পায়।

কখন ব্রা পরা শুরু করা উচিত

মেয়েদের যখন বেস্ট এর সাইজ বড় হবে তখন থেকে তারা ব্রা তখন থেকে ব্রা পরতে পারে এটার কোন নিয়ম নাই ।এটা একেকজন নারীর জন্য একেকটাইমে শুরু করা উচিত কিন্তু সাধারণত প্রেগনেন্সির ৪ মাস থেকে এটা পরিধান করা উচিত।একটি সঠিক মাপের ব্রা মহিলাদের অনেক আরামদায়ক অনুভুতি দেয় । বাচ্চাকে বুকের দুধ খায়ানোর সময় পরিধানের জন্য অনেক ধরনের ব্রা পাওয়া যায় এখন বাজারে।

ব্রা সঠিক ব্যবহার

মেয়েদের জন্য সঠিকভাবে ব্রা পরানো একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। এটি না কেবল স্বাস্থ্য ও কমফর্টের জন্য বরং পোষণ, সমর্থন এবং স্বাধীনতা প্রদানের জন্যও গুরুত্বপূর্ণ।

সঠিক ব্রা সাইজ নির্ধারণ নির্ধারণ করা জরুরি। নিকটস্থ ব্রা শপে গিয়ে পেশাদার ব্রা ফিটিং সেশন করতে পারেন বা আপনি স্বতন্ত্রভাবে সঠিক ব্রা সাইজ জানতে পারেন। ব্রা সাইজ দুইটি উপাংশ সংখ্যা এবং অক্ষর সংখ্যা দ্বারা প্রকাশিত হয়। উদাহরণস্বরূপ, 34C, 36D, 32B ইত্যাদি।

ব্রা পরানোর সময় নিশ্চিত হউন যে ব্রাটি সঠিক স্থানে আছে। ব্রাটির ব্যান্ড আপনার স্তনের চারপাশে সুষমভাবে পাঠানো উচিত। আপনার স্তনের ভালোভাবে মোছানো প্রজ্জলিত অংশটি
ব্রা কাপের মাঝে অবস্থান করবে।

ব্রা ব্যান্ড প্রতিষ্ঠান এবং সমর্থন প্রদানের জন্য প্রয়োজনীয়, কিন্তু এটি অত্যন্ত কম্প্রেসশন না দেয়া উচিত। ব্রা ব্যান্ডটি খুব সংকীর্ণভাবে পুরোনো করে দেওয়া উচিত নয়। ব্রা ব্যান্ডের কম্প্রেশন স্তনে অবস্থিত হতে পারে এবং তা সঙ্গে নির্বিঘ্নে সংকীর্ণভাবে মিলিত থাকতে পারে।

ব্রা সঠিকভাবে সমর্থন ও সংকীর্ণতা প্রদান করতে হবে। ব্রাটির কাপ সঠিক আকারে স্তনের উপর প্রজ্জলিত অংশটি সমর্থন করতে হবে এবং স্তন দুইটির মাঝে সংকীর্ণতা তৈরি
করতে হবে।

ব্রা পরানোর সময় সম্প্রচারযোগ্য ও নিরাপদ পদার্থ ব্যবহার করা উচিত। শুধুমাত্র শুদ্ধ কপোট বা শুদ্ধ সংলগ্ন পদার্থগুলি দিয়ে নির্মিত ব্রা ব্যবহার করুন।

কখনই খুব ঢিলে বা খুব টাইট ব্রা পরবেন না। সবসময় সঠিক মাপের এবং উন্নত মানের অর্থাৎ ভাল কোম্পানীর ব্রা ব্যবহার করবেন।

সবসময় সুতির ব্রা (ব্রেসিয়ারের) ব্যবহার করবেন। স্তন ছোট হলে প্যাড লাগানো এবং স্তন ভারী হলে প্যাড ছাড়া ব্রা (ব্রেসিয়ারের) ব্যবহার করবেন।

সুতির ব্রা অনেক বেশী আরামদায়ক। সুতির ব্রা শীত, গ্রীষ্ম সব ঋতুতেই পরা যায়। সুতির কাপড়ের ব্রা ঘাম শুষে নেয়। নানা রঙের ব্রা পাওয়া যায়। ব্লাউজের রঙ অনুযায়ী ব্রা পরবেন।
ব্রা কেনার সময় দেখে নেবেন ছক বা স্ট্র্যাপ যেন এবড়ো খেবড়ো বা খড়মড়ে না হয়।

সহজে কাচা যায় এমন ব্রা পরবেন। প্রতিদিন কাচা ব্রা পরার চেষ্টা করবেন।

সবসময় শুকনো ব্রা পরবেন।

ব্ৰা পরার আগে গরমকালে পুরো স্তনে ভাল করে পাউডার লাগিয়ে ব্রা পরবেন।

প্রসাধন করার পর ব্রা পরবেন। সাঁতারের পোশাকের নিচে এবং ঘুমোনোর সময় ব্রা পরবেন না।

সঠিক নিয়মে ব্রা পরানো অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ, স্বাস্থ্যকর এবং কমফর্টের জন্য অনুশাসন অবলম্বন করতে হবে। নিরাপদ এবং কার্যকর ব্রা সিলেক্ট করুন এবং নিয়মিত অবধি নতুন ব্রা কিনতে পরামর্শ করা
হচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *